বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে কিছু সাধারণ জ্ঞান MCQ প্রশ্ন – PDF ডাউনলোড

ক্যামেরার সামনে অভিনয় করে নায়ক হয়ত অনেকেই হয়েছে আবার হারিয়েও গেছে। কিন্তু যারা বাস্তবিক পক্ষেই প্রকৃত নায়ক তারা কখনো হারায় না। ইতিহাসের পাতায় জ্বলজ্বল করে তাদের নাম। তারা যুগ যুগ ধরে বেচে থাকে কোটি মানুষের হৃদয়ে। আজ তেমনি এক নায়কের কথা বলতে যাচ্ছি যিনি ছিলেন ইতিহাসের মহানায়ক, মহান নেতা এবং একটি জাতির স্বাধীনতার স্থপতি। বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি, কোটি বাঙালির ভালোবাসা ও আবেগের মহান এই ব্যক্তির নাম হচ্ছে শেখ মুজিবুর রহমান। তিনি ছিলেন তার ব্যক্তিত্ত ও সাহসিকতায় অনন্য। এজন্যই হয়তো কিউবান রাজনৈতিক নেতা ফিদেল কাস্ত্রো বলেছিলেন, ‘আমি হিমালয় দেখিনি কিন্তু শেখ মুজিবকে দেখেছি।’

বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে ছোট ছোট বহুনির্বাচনী প্রশ্ন করা হয়ে থাকে। আমরা লক্ষ্য করেছি যে অনেক চাকরিপ্রার্থী বা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছু প্রার্থীরা বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন খুঁজে বেড়ায়। তাই আজকের এই পোস্টে আমরা আপনাদের সাথে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে কিছু সাধারণ জ্ঞান mcq প্রশ্ন শেয়ার করতে চলেছি। আশা করি আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে আপনি বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে সকল বিস্তারিত তথ্য জানতে পারবেন চলুন সংক্ষিপ্ত আকারে কিছু জেনে নেওয়া যাক এই রাষ্ট্রনায়ক সম্পর্কে।

বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে কিছু কথা

দিনটি ছিল ১৯২০ সালের ১৭ই মার্চ, রোজ বুধবার। ফরিদপুর জেলার গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শেখ লুৎফর রহমান ও সায়েরা খাতুনের ঘর আলোকিত করে আসে শেখ মুজিবুর রহমান। ৬ ভাই-বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয়। পরিবারের সবাই তাকে ডাকত ‘খোকা’ নামে। কে জানত এই খোকাই একদিন বাঙালিকে এনে দিবে লাল সবুজের বাংলাদেশ ?

টুঙ্গিপাড়ার শ্যামল পরিবেশে খোকার শৈশব কাটে খেলাধুলা আর দুরন্তপনা করে। মধুমতির ঘোলাজলে গ্রামের ছেলেদের সাথে সাঁতার কাটা, দল বেঁধে হা-ডু-ডু, ফুটবল, ভলিবল খেলা ছিল নিত্য-নৈমত্তিক ব্যাপার। সে ছিল দস্যি বালকদের নেতা। ফুটবল খেলার প্রতি ছিল তাঁর দুরন্ত টান এবং সে এতে খুব পারদর্শী ছিলেন। একজন মেধাবী ফুটবলার হিসেবে তিনি অসামান্য খ্যাতি অর্জন করেন। তার বাবা তাকে এ ব্যাপারে খুব উৎসাহ দিতেন। প্রতিযোগিতামূলক ফুটবল খেলাগুলোতে কৃতিত্বের স্বীকৃতিস্বরূপ শেখ মুজিবুর রহমান নিয়মিত পুরস্কৃত হতেন।

১৯২৭ সালে সাত বছর বয়সে শেখ মুজিবুর রহমান গিমাডাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তির মাধ্যমে তাঁর স্কুল জীবন আরম্ভ করেন। নয় বছর বয়সে তিনি গোপালগঞ্জ পাবলিক স্কুলে তৃতীয় শ্রেণিতে ভর্তি হন। সেখান থেকে তিনি ১৯৪২ সালে এন্ট্রান্স পাস করেন। পরবর্তীতে তিনি ইসলামিয়া কলেজে ভর্তি হন। সেখানে তিনি বেকার হোস্টেলে থাকতেন। এ সময় তিনি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সংস্পর্শে আসেন। সেখানে তিনি হলওয়ে মনুমেন্ট আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন সক্রিয়ভাবে। তিনি ইসলামিয়া কলেজ থেকে ১৯৪৭ সালে বিএ পাস করেন। এরপর দেশ বিভাগের পর তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে ভর্তি হন। তিনি সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের ছাত্র ছিলেন। একসময় বিশ্ববিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের দাবি-দাওয়া পূরণের জন্য তিনি প্রথম আন্দোলন শুরু করেন পাকিস্তান প্রতিষ্ঠা লগ্নে। এতে করে তাকে কারাবরণ করতে হয়েছে বহুবার।

শেখ মুজিব তার জীবনে সর্বমোট ৪৬৮২ দিন কারাগারে কাটিয়েছেন। তিনি তার ব্যক্তিগত কোনো ভুলের জন্য কারাবরণ করেননি। তিনি এ শাস্তি ভোগ করেছেন শুধুমাত্র সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ের দাবিতে যুক্ত থাকার কারণে। শেখ মুজিবুর রহমান ১৮ বছর বয়সে ফজিলাতুন্নেছাকে বিয়ে করেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে কিছু সাধারণ জ্ঞান

আপনি যদি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে কিছু সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন খুঁজে থাকেন তাহলে এই মুহূর্তে আপনি সঠিক জায়গায় চলে এসেছেন। এখন আমরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে ৪০টি সাধারণ জ্ঞান [PDF] প্রশ্ন শেয়ার করতে চলেছি। প্রশ্নগুলো বিভিন্ন প্রাক নির্বাচনী পরীক্ষার প্রশ্ন থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে শুধুমাত্র আপনাদের সুবিধার জন্য। যাতে আপনারা খুব সহজেই এই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সস্পর্কে এই সাধারণ জ্ঞান গুলো পড়তে পাড়েন।

এরকম আরো পিডিএফ পেতে চাইলে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে আমাদের জানাবেন। পোস্টটি শেয়ার করে আপনার সহযোগীদের পড়ার সুয়োগ করে দেন। এবং আমাদের আরো ভালো কিছু প্রশ্ন খুঁজে বের করায় আগ্রহী করুন।

১.প্রশ্নঃযদি কোনো পিতা তার মেয়ের ধর্ষণের জন্য তার পিতার নামের জায়গায় নাম দিতে লজ্জা পায়,তাহলে যেনো সে জায়গায় আমার নাম দিয়ে দেয়।
এই মহত্ত্বের কথাটি কে বলেছেন?
উত্তরঃ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

২.প্রশ্ন : ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বইটির লেখকের নাম কী?
উত্তর: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

৩.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম কত সালে, কোথায়?
উত্তর: ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ, গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায়।

৪.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধুর শিক্ষাজীবন শুরু হয় কোন স্কুলে?
উত্তর: গোপালগঞ্জের গিমাডাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

৫.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু ম্যাট্রিক পাশ করেন কোন স্কুল থেকে, কত সালে?
উত্তর: গোপালগঞ্জ মিশনারি স্কুলে, ১৯৪২ সালে।

৬.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু কলকাতা ইসলামিয়া কলেজের বেকার হোষ্টেলের কত নম্বর কক্ষে থাকতেন?
উত্তর: ২৪ নম্বর কক্ষে।

৭.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু আনুষ্ঠানিকভাবে রাজনীতিতে অভিষিক্ত হন কীভাবে?
উত্তর: ১৯৪৪ সালে কুষ্টিয়ায় অনুষ্ঠিত নিখিল বঙ্গ মুসলিম ছাত্রলীগের সম্মেলনে যোগদানের মাধ্যমে।

৮.প্রশ্ন : যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু কোন আসনে বিজয়ী হন?
উত্তর: গোপালগঞ্জ আসনে।

৯.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু কোন মন্ত্রীসভায় সর্বকনিষ্ঠ মন্ত্রী ছিলেন?
উত্তর: ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্ট মন্ত্রীসভায়।

১০.প্রশ্ন : ১৯৬৪ সালে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সম্মিলিত বিরোধী দল গঠন করা হয়। দলটির নাম কী?
উত্তর: কম্বাইন্ড অপজিশন পার্টি।

১১.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু মুজিব ছয়দফা ১ম কবে ঘোষনা করেন?
উত্তর: ৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৬

১২.প্রশ্ন : আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অধিবেশনে ৬ দফা গৃহীত হয় কত সালে?
উত্তর: ১৯৬৬ সালের ১৮ মার্চ।

১৩.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব আনুষ্ঠানিকভাবে কবে ছয়দফা ঘোষনা করেন?
উত্তর: ২৩ মার্চ ১৯৬৬

১৪.প্রশ্ন : কোন প্রস্তাবের ভিত্তিতে ছয়দফা রচিত হয়?
উত্তর: লাহোর প্রস্তাব

১৫.প্রশ্ন : ছয়দফার প্রথম দফা কি ছিল?
উত্তর: স্বায়ত্বশাসন

১৬.প্রশ্ন : ‘বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ’ হিসেবে পরিচিত কোনটি?
উত্তর: ছয় দফা।

১৭.প্রশ্ন : আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার আসামী ছিল কত জন? বঙ্গবন্ধু কততম আসামী ছিলেন?
উত্তর: ৩৫ জন। বঙ্গবন্ধু ছিলেন ১ নং আসামী।

১৮.প্রশ্ন : আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা কী নামে দায়ের করা হয়েছিল?
উত্তর: রাষ্ট্রদ্রোহীতা বনাম শেখ মুজিব ও অন্যান্য।

১৯.প্রশ্ন : শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘বঙ্গবন্ধু’ উপাধিতে ভূষিত করা হয় কত সালে?
উত্তর: ১৯৬৯ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি।

২০.প্রশ্ন : শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘বঙ্গবন্ধু’ উপাধি কে দেন?
উত্তর: তৎকালীন ডাকসুর ভিপি তোফায়েল আহমেদ।

২১.প্রশ্ন : কোথায় ‘বঙ্গবন্ধু উপাধি দেওয়া হয়?
উত্তর: রেসকোর্স ময়দানে।

২২.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু পূর্ব বাংলাকে ‘বাংলাদেশ’ নামকরন করেন কত সালে?
উত্তর: ৫ ডিসেম্বর, ১৯৬৯ ।

২৩.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষণ কোথায় দেন?
উত্তর: ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে, যা এখন সোহরাওয়ার্দি উদ্যোন নামে পরিচিতি।

২৪.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষণের মূল বক্তব্য কী ছিল?
উত্তর: এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।

২৫.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু কখন স্বাধীনতার ঘোষণা দেন?
উত্তর: ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ মধ্যরাত অর্থাৎ ২৬ মার্চে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। এরপরই পাকিস্তানি সেনাবাহিনী বঙ্গবন্ধুকে গ্রেপ্তার করে।

২৬.প্রশ্ন : ১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল গঠিত অস্থায়ী সরকারের বঙ্গবন্ধুর পদ কী ছিল?
উত্তর: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পদ ছিল রাষ্ট্রপতি।

২৭.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্তি পান কবে?
উত্তর: ১৯৭২ সালের ৮ জানুয়ারি।

২৮.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু স্বাধীন বাংলাদেশে ফেরেন কবে?
উত্তর: ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি, যা বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস নামে পরিচিত।

২৯.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু স্বাধীন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব গ্রহণ করেন কত তারিখে?
উত্তর: ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি।

৩০.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু প্রথম নেতা হিসেবে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে বাংলা ভাষায় বক্তৃতা দেন কত সালে, কত তারিখে?
উত্তর: ১৯৭৪ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর।

৩১.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু স্বপরিবারে নিহত হন কত তারিখে?
উত্তর: ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট।

৩২.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধুর স্ত্রীর নাম কী?
উত্তর: শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব।

৩৩.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধুর ছেলে–মেয়ে কত জন? তাদের নাম কী?
উত্তর: ৫ জন। তিন ছেলে দুই মেয়ে। শেখ হাসিনা, শেখ কামাল, শেখ রেহানা, শেখ জামাল ও শেখ রাসেল।

৩৪.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু জাদুঘর কোথায় অবস্থিত?
উত্তর: ঢাকার ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে।

৩৫.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু কত সালে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সহকারী নিযুক্ত হন?
উত্তর: ১৯৪৬ সালে।

৩৬.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু বিএ পাশ করেন কত সালে, কোন কলেজ থেকে?
উত্তর: ১৯৪৭ সালে কলকাতা ইসলামিয়া কলেজ থেকে।

৩৭.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন বিভাগের ছাত্র ছিলেন?
উত্তর: আইন বিভাগের।

৩৮.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কত সালে কেন বহিস্কৃত হন?
উত্তর: ১৯৪৯ সালে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের আন্দোলনে সংহতি প্রকাশ করায় তাঁকে বহিস্কার করা হয়।

৩৯.প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু জীবনে প্রথম কারাভোগ করেন কত সালে কত তারিখে?
উত্তর: ১৯৩৯ সালে। সরকারি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে একটি প্রতিবাদ সভা করার কারণে তাঁকে কারভোগ করতে হয়।

৪০.প্রশ্ন : ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ প্রতিষ্ঠা লাভ করলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব

বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে ১০ টি বাক্য

বিভিন্ন চাকরি-বাকরির লিখিত পরীক্ষায় বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে দশটি বাক্য লিখতে বলা হয়ে থাকে। প্রতিযোগিতামূলক চাকরির পরীক্ষার ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে দশটি বাক্য জানা অত্যন্ত জরুরী। আপনি যদি ইন্টারনেটে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে দশটি বাক্য খুঁজে থাকেন তাহলে এই মুহূর্তে আপনি সঠিক জায়গায় চলে এসেছেন। এখন আমরা আপনাদের সাথে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে দশটি গুরুত্বপূর্ণ বাক্য শেয়ার করতে চলেছে। আশা করি এসকল বাক্যগুলো আপনার অনেক উপকারে আসবে এবং আপনার চাকরি বা ভর্তি পরীক্ষায় অনেক ভালো করতে পারবেন।

  1. বাঙালি জাতির শ্রেষ্ঠ পুরুষ হলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
  2. বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ, গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্ম গ্রহন করেন।
  3. ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বইটির লেখক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
  4. ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ মধ্যরাত অর্থাৎ ২৬ মার্চে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন.
  5. সালে কলকাতা ইসলামিয়া কলেজ থেকে বঙ্গবন্ধু বিএ পাশ করেন।
  6. ছয় ভাই বনের মধ্যে বঙ্গবন্ধু ছিলেন ৩য়।
  7. বঙ্গবন্ধু ১৯৪৬ সালে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সহকারী নিযুক্ত হন।
  8. শেখ মুজিব ৯ জুলাই ১৯৫৩ সালে আওয়ামী মুসলিম লীগের সাধারণ সম্পাদক হন।
  9. বঙ্গবন্ধু ১৯৬৬ সালের ১ মার্চ তারিখে আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন।
  10. শেখ মুজিবকে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার প্রধান আসামী করা হয়েছিল।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ভাইবা প্রশ্ন

বাংলার রাষ্ট্রনায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে চাকরির ভাইভা পরীক্ষা দেও প্রশ্ন করা হয়ে থাকে। আপনি যদি একজন ভাইভা পরীক্ষার প্রার্থী হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনাকে শেখ মুজিব সম্পর্কে জেনে নেওয়া আবশ্যক। কেননা প্রায় প্রতিটি ভাইবা পরীক্ষায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয়ে থাকে। ইতোমধ্যে আমরা আপনাদের সাথে বেশ কিছু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন এবং উত্তর শেয়ার করেছি। এছাড়াও আপনি যদি আরো mcq প্রশ্ন ও উত্তর পেতে চান তাহলে নিচের দেওয়া লিংকে ভিজিট করতে পারেন।

বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে MCQ প্রশ্ন PDF

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে এমসিকিউ প্রশ্ন গুলো পিডিএফ আকারে পেতে চান তাহলে এখান থেকে তা সংগ্রহ করতে পারবেন। আমরা বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় আসা বহুনির্বাচনী প্রশ্ন হতে বাছাইকৃত অধিক গুরুত্বপূর্ণ বহুনির্বাচনী প্রশ্ন গুলো সংগ্রহ করেছি। তাহলে চলুন সম্পূর্ণ ফ্রিতে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে এমসিকিউ প্রশ্ন পিডিএফ আকারে সংগ্রহ করি।

১. ‘মুজিব বর্ষ’ কী?
উত্তর: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী (জন্ম ১৭ মার্চ ১৯২০)।

২. মুজিব বর্ষের সময়কাল কত?
উত্তর: ১৭ মার্চ ২০২০—১৭ মার্চ ২০২১।

৩. ‘মুজিব বর্ষ’ ঘোষণা করেন কে?
উত্তর: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

৪. মুজিব বর্ষের ক্ষণগণনা শুরু হয় কবে?
উত্তর: ১০ জানুয়ারি ২০২০ থেকে।

৫. মুজিব বর্ষের ক্ষণগণনা অনুষ্ঠান কোথায় অনুষ্ঠিত হয়?
উত্তর: তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দর, ঢাকা।

৬. তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দরে মুজিব বর্ষের ক্ষণগণনা উদ্বোধন করেন কে?
উত্তর: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

৭. মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ওয়েবসাইট তৈরি করেছে কোন প্রতিষ্ঠান/সরকারের কোন বিভাগ?
উত্তর: সরকারের তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ।

৮. মুজিব বর্ষ উদ্যাপনে সরকারের তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের তৈরি ওয়েবসাইটের নাম কী?
উত্তর: www.mujib100.gov.bd

৯. মুজিব বর্ষের লোগোর ডিজাইনার কে?
উত্তর: সব্যসাচী হাজরা।

১০. কে কবে মুজিব বর্ষের লোগো উন্মোচন করেন?
উত্তর: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ১০ জানুয়ারি ২০২০।

১১. মুজিব বর্ষের উদ্বোধন করা হবে কবে?
উত্তর: ১৭ মার্চ ২০২০ (জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে)।

১২.ইউনেসকোর কততম সাধারণ অধিবেশনে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়?
উত্তর: ৪০তম।

১৩. ‘মুজিব বর্ষ’ উপলক্ষে কত তারিখকে বিমা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়?
উত্তর: ১ মার্চ।

১৪. বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ব্যাংক কতটি স্মারক মুদ্রা প্রকাশ করবে?
উত্তর: চারটি (একটি স্বর্ণমুদ্রা, একটি স্মারক মুদ্রা, ১০০ টাকা মূল্যমানের একটি স্মারক নোট ও ২০০ টাকা মূল্যমানের স্মারক নোট)।

১৫. ‘মুজিব বর্ষ’ উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষ সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হ্য়ওয়ার কথা ছিল কবে?
উত্তর: ৫ সেপ্টেম্বর ২০২০।

১৬. ‘মুজিব বর্ষে’ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষ সমাবর্তনে সমাবর্তন বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিল কার?
উত্তর: নোবেল বিজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়।

১৭. ৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষ সমাবর্তনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সম্মানসূচক কোন ডিগ্রি প্রদান করা হবে?
উত্তর: ডক্টর অব লজ (মরণোত্তর)।

১৮. অমর একুশে বইমেলা ২০২০ কাকে উত্সর্গ করা হয়?
উত্তর: ‘মুজিব বর্ষ’ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে?

১৯. মুজিব শব্দের অর্থ কী?
উত্তর: উত্তরদাতা।

২০. বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কোথায় জন্মগ্রহণ করেন?
উত্তর: ফরিদপুর জেলার গোপালগঞ্জ মহকুমার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে (বর্তমানে গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে)।

২১. বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জন্মগ্রহণ করেন কবে?
উত্তর: ১৭ মার্চ ১৯২০।

২২. ১৭ মার্চ কী দিবস?
উত্তর: জাতীয় শিশু দিবস।

২৩. বঙ্গবন্ধুর পিতার নাম কী?
উত্তর: শেখ লুৎফর রহমান।

২৪. বঙ্গবন্ধুর মাতার নাম কী?
উত্তর: সায়েরা খাতুন।

২৫. বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকনাম কী ছিল?
উত্তর: খোকা।

২৬. বঙ্গবন্ধুর স্ত্রীর নাম কী?
উত্তর: বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব (ডাকনাম রেণু)।

২৭. বঙ্গবন্ধু কোথায় প্রাথমিক শিক্ষা শুরু করেন?
উত্তর: গিমাডাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

২৮. বঙ্গবন্ধু ম্যাট্রিকুলেশন পাস করেন কোন স্কুল থেকে?
উত্তর: গোপালগঞ্জ সেন্ট মথুরানাথ মিশনারি স্কুল থেকে।

২৯. বঙ্গবন্ধু কোথা থেকে বিএ ডিগ্রি লাভ করেন?
উত্তর: কলকাতার ইসলামিয়া কলেজ থেকে।

৩০. বঙ্গবন্ধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন কবে?
উত্তর: ১৯৪৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে (আইন বিভাগে)।

উপসংহার

আশা করি আজকের পোস্টের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে কিছু সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন ও উত্তর খুজে পেয়েছেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের উদ্যোক্তা ও স্থপতি। তিনি আবহমান বাংলার সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি। তিনি আছেন আকাশে বাতাসে, পাখির গানে নদীর কলতানে। কবির কবিতায়, শিল্পীর ক্যানভাসে,ফুলের সুবাসে,গায়কের কন্ঠে বঙ্গবন্ধুর মহিমা প্রচার। তার স্থান বাঙালির অন্তরে। তাকে নিয়ে বলার লেখার ও শোনার অন্ত নেই। তার প্রতি প্রত্যেক মানুষের অফুরন্ত ভালোবাসা। তার নামের সাথে অন্য কোনো বাঙালির নাম তুলনা করা যাবে না।

About Farjana Farin

আমি ফারজানা। আমার এই ছোট ওয়েবসাইট টিতে বাংলাদেশের সকল প্রকার ফলাফল নিয়ে লেখা লেখি করে থাকি। যেমনঃ পিএসসি ফলাফল, জে এস সি ফলাফল, এস এস সি ফলাফল, এইচ এস সি ফলাফল, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ফলাফল, বিভিন্ন ইউনিভার্সিটি তে ভর্তি ফলাফল, বি সি এস ফলাফল ইত্যাদি।
View all posts by Farjana Farin →